গোয়ালের গরুর প্রতি এ কেমন শত্রুতা?

আগুন দেয়া গোয়াল ঘরে দগ্ধ গরু। ছবি: সংগৃহীত

‘পারিবারিক শত্রুতার’ জেরে গোয়ালে আগুন দিয়ে ছয়টি গরুকে পুড়িয়ে মারা অভিযোগ উঠেছে বাংলাদেশের গাইবান্ধা জেলার সুন্দরগঞ্জ উপজেলায়। ৭ জুলাই, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলাটির দহগঞ্জ ইউনিয়নের এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

অভিযোগে বলা হয়, গোয়ালে থাকা নয়টি গরুর মধ্যে ছয়টিই আগুনে পুড়ে মারা গেছে। আরো দুটি গরুর অবস্থা আশঙ্কাজনক। পুলিশ ধারণা, কেরোসিন তেল দিয়ে গরুর গোয়ালে আগুন দেয়া হয়। ঘটনাস্থল থেকে একটি কেরোসিনের বোতলও পাওয়া গেছে বলে জানান সুন্দরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবদুল্লাহিল জামান।

পুলিশ জানায়, এ ঘটনায় ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। মামলার বাদীর দাবি, পারিবারিক পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে। প্রধান অভিযুক্ত আসামি আবদুল খালেককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুল্লাহিল জামান বলেন, “যারা অভিযোগ করেছেন এবং যারা অভিযুক্ত, ওই দুই পরিবার আগেও একে অপরের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন এবং এখনও চলছে সেসব মামলা।”

বাংলাদেশে ব্যক্তিগত বা পারিবারিক শত্রুতার জেরে গবাদি পশু ও হাঁস-মুরগি হত্যার ঘটনা নতুন নয়। প্রায়ই শত্রুতার কারণে আগুন বা বিষ প্রয়োগ করে খামারের প্রাণী বা চাষের মাছ মেরে ফেলার অভিযোগ ওঠে। অনেক সময় শত্রুকে অপদস্থ করতে বা ফাঁসিয়ে দেয়ার উদ্দেশ্যেও নিজের সম্পদের ক্ষতি করার ঘটনার অভিযোগও ঘটে।